পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার কিছু কৌশল

পরীক্ষার প্রস্তুতি: নভেম্বর থেকে শুরু হবে এস.এস.সি পরীক্ষা। পরীক্ষার জন্য কতটুকু প্রস্তুত শিক্ষার্থীরা। করোনা মহামারীর কারণে এ বছর এস এস সি পরীক্ষা ৮ মাস দেরিতে শুরু হতে যাচ্ছে। এই সময়ে শিক্ষার্থীদের গোটা বই মুখস্থ হয়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু বর্তমান শিক্ষার্থীরা “The Eleventh Hour Generation” পরীক্ষার আগের দিন রাত ছাড়া পড়তে বসবে না। এস.এস.সি পরীক্ষার বাকি আর মাত্র কয়েকদিন তাই পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে কিছু কৌশল অবলম্বন করতে হবে। চলুন তাহলে কৌশল গুলো জেনে নিই।

১. যেটুকো সময় আছে তার রুটিন করুন

পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে সময়কে ভাগ করে নিন copyright by insightpublications.com.au _FINAL_22Oct2018-870x400_c
 পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে সময়কে ভাগ করে নিন  Source: insightpublications.com.au 

সময় যেহেতু বেশি নেই তাই সময়কে ভাগ করে নিতে হবে। রুটিন করুন কোন বিষয় কত সময় ধরে পড়বেন। এতে করে সময়ের ব্যবহার হবে আর রুটিন করলে পড়ার মধ্যে ফাকি বাজী করা যাবে না।

২. পড়ার সময় স্মার্টফোন দূরে রাখবে

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া কেউ চলতে পারে না। পড়ার নোট, সাজেশন, কমন প্রশ্নত্তর সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ারিং হয়। পড়ার শেষ করার জন্য এগুলো যেমন প্রয়োজনীয় ঠিক তেমনি প্রয়োজন পড়ায় মনোযগী হওয়া। তাই পড়ার আগেই নোট, সাজেশন দেখে নিয়ে তার পর পড়তে বসতে হবে। আর এই সময় স্মার্টফোনের নোটিফিকেশন অফ করে হাতের কাছ থেকে দূরে রাখুন স্মার্টফোন। তাই বলে টেবিলের উপর মোবাইল রাখবেন না। গবেষণায় দেখা গেছে সামনে থাকা মোবাইল দিকে একবার তাকলেও আপনার মনোযোগ নষ্ট হয়।

৩. পড়ার জন্য নিরিবিলি পরিবেশ রাখুন

 নিরব স্থানে পড়ার মনযোগ বেশি থাকে। তাই ভোরের নিরব পরিবেশে পড়তে বসুন। এই পরিবেশে পড়লে আপনার মন ও পড়া দুই ভালো হবে।

৪. পড়ার ফাকে ফাকে বিরতি নিতে হবে

একটানা পড়লে দেখা যায় যে পড়ায় মনযোগ কম থাকে। সেক্ষেত্রে পড়ার ফাকে ফাকে বিরতি নিতে হবে। টানা ৩০ মিনিট পড়ার পর ৫ মিনিটের বিরতি নিতে পারও। এত করে পড়ায় নতুন করে মনযোগ তৈরি হবে।

৫. সব না পড়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলো পড়ুন

সব প্রশ্নের উত্তর এক চাটিয়া না পড়ে যে প্রশ্নগুলো বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেগুলো বেশী করে পড়ুন। এত পরীক্ষার প্রস্তুতি অনেক সহজ হয়ে যাবে।

৬. অতিরিক্ত রাত জেগে পড়া বান্ধ করুন

পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে  অনেকে রাত জেগে পড়েন। এত করে নিজের ক্ষতি নিজে করছেন। মস্তিষ্কে স্মৃতি তৈরি হয় ঘুমের মধ্যে। তাই রাতে সময় মত ঘুমান। আর পড়া শেষ করার জন্য ভোরে ঘুম থেকে উঠুন। ঘুমানোর সময় নির্দিষ্ট রাখার চেষ্টা করুন। ঘুমানোর আগে মোবাইল বা টিভি স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকা বন্ধ করুন।

৭. কঠিন পড়া ঘুমানোর আগে পড়ুন

ঘুমানোর ঠিক আগ মূহুর্তে আমরা যা করি তা আমাদের বেশি মনে থাকে। তাই কঠিন পড়াগুলো ঘুমানোর আগে পড়ুন। 

৮. পরীক্ষার আগের রাতে পড়া রিভাইস করুন

পরীক্ষার আগের রাতে আগে যে পড়াগুলো শেষ করেছেন সেগুলো রিভাইস করুন। এই সময় নতুন করে আর কিছু পড়ার দরকার নাই।

৯. পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করুন

খাবারের সাথে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতার সম্পর্ক রয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে পরীক্ষার প্রস্তুতি কালীন সময় আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া উচিত। কারণ আঁশযুক্ত খাবার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

১০. নিজেকে যাচাই করুন

যে প্রশ্নগুলো পড়ছেন তা লিখে ফেলুন। এত করে নিজেকে যাচায় করা হবে যে আপনি কতটা ভালোমত পড়া মুখস্থ করেছেন। এটা করলে আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়বে। এই আত্মবিশ্বাস পড়া মনে রাখতে ও পরীক্ষায় ভালো করতে সাহায্য করে।

১১. শান্ত ও আত্মবিশ্বাসী হোন

পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় শান্ত থাকুন। আপনার মাথা যত শান্ত থাকবে আপনি তত দ্রুত প্রস্তুতি শেষ করতে পারবেন। এই সময় নিজের প্রতি আস্থা রাখুন। আপনার আত্মবিশ্বাস আপনার সাফল্যের চাবিকাঠি।

আরও দেখুন: 

পরীক্ষার প্রস্তুতি ও পরীক্ষার দিনে করণীয় 

আপনাকে এই দিনটির জন্য পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিতে হবে। টেনশন হতেই পারে এটা খুবই স্বাভাবিক। ভালো ফলাফলের জন্য শান্ত থাকুন এবং দীর্ঘশ্বাস নিন। নিজের প্রতি আস্থা রেখে পরীক্ষা দিতে যান।

  • পরীক্ষা কেন্দ্রে ৩০ মিনিট আগে পৌছাবেন
  • প্রশ্নপত্র পুরোটা পড়ুন লেখা শুরু করার আগে
  • প্রশ্নোত্তর লেখার সময় ভাগ করে নিন 
  • প্রশ্নোত্তর  লেখার সময় আটকে গেলে পরবর্তী প্রশ্নে চলে যান 
  • প্রশ্নোত্তর ক্রমানুসারে লিখুন
  • পরীক্ষা দেওয়ার সময় কিছুক্ষণ পর পর পানি খান
  • ৩০ মিনিট আগেই পরীক্ষা শেষ করুন এবং সব উত্তর গুলো আরেকবার দেখে নিন

পরীক্ষার প্রস্তুতি জন্য এই কৌশলগুলো মেনে চললে আপনার পরীক্ষা ভালো হবে আশা করি।

পরীক্ষার প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে:

এডুকেশন নিউজ সাইটটি ব্যবহার করায় আপনাকে ধন্যবাদ। আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে “যোগাযোগ” আর্টিকেলটি দেখুন, যোগাযোগের বিস্তারিত দেয়া আছে।